সাকিব ও সোহানের জরিমানা

Breaking News: ক্রিকেট খেলা প্রধান সংবাদ

বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান এবং উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানের জরিমানা করেছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। শুক্রবার কলম্বোতে শ্রীলঙ্কার ম্যাচের ঘটনায় তাদের এ শাস্তি। দুজনেরই ম্যাচ ফি`র ২৫ শতাংশ জরিমানার ঘোষণা
দিয়েছে শনিবার দুপুরে সংস্থাটি। আইসিসি কোড অব কন্ডাক্টের লেভেল ওয়ান ভাঙায় সাকিব-সোহানকে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্টও দেওয়া হয়েছে। তুমুল উত্তেজনার ম্যাচটি ২ উইকেটে জিতে নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। সোহান ছিলেন রিজার্ভ খেলোয়াড়। ২০১৬ এ সেপ্টেম্বরে ডিমেরিট পয়েন্ট চালু হওয়ার পর এই প্রথম একই সঙ্গে দুই খেলোয়াড় ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন।

কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শুক্রবারের ম্যাচের শেষ ওভারে নানা ঘটনা ঘটে। আম্পায়ার দ্বিতীয় বাউন্সারকে নো বল কল না করায় সাকিব ক্ষেপে মাহমুদউল্লাহদের মাঠ ছেড়ে চলে আসতে বলেন। ওই সময় পানীয় নিয়ে মাঠে ঢোকা সোহান লঙ্কান অধিনায়ক থিসারা পেরেরার সঙ্গে ঝগড়া করেছেন। মাহমুদউল্লাহ ৩ বলে ১২ রান তুলে অসাধারণ জয়ে দলকে ফাইনালে নেন।

আইসিসির আচরণ নীতিমালায় সাকিবের বিরুদ্ধে খেলার স্পিরিট বিরোধী কাজের অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। আর সোহান `খেলাকে কলঙ্কিত` করার অভিযোগে দোষী হয়েছেন। ১৯.২ ওভারের সময় সাকিবের আচরণ আম্পায়ারের বিরুদ্ধে গেছে। তার বার্তা নিয়ে মাঠে ঢুকে সোহান ঝামেলা পাকিয়েছেন। প্রকাশ্যে এমন আচরণের বিরোধী আইসিসির আইন। লেভেল ওয়ানের আইন ভাঙার শাস্তি ম্যাচ ফির সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ জরিমানা, সঙ্গে একটি বা দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট।

শনিবার সকালে ওই ম্যাচের ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড সাকিব ও সোহানকে অভিযোগে দোষী পান। দুজনই অপরাধ স্বীকার করে নিয়েছেন। তাই আনুষ্ঠানিক শুনানির দরকার পড়েনি। অন ফিল্ড আম্পায়ার রবীন্দ্র উইমালাসিরি ও রুচিরা পালিয়াগুরুগে এবং থার্ড আম্পায়ার রানমোরে মার্টিনেজ ও চতুর্থ আম্পায়ার লিন্ডন হ্যানিবাল এই অভিযোগ আনেন।

সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে ব্রড বলেছেন, শুক্রবারের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন আচরণ কেউ দেখতে চায় না। আমি বুঝি ওটা খেলার একেবারে চূড়ান্ত পর্যায়ের টানটান সময়ে ঘটেছে কিন্তু ওই দুই খেলোয়াড়ের আচরণ অগ্রহণযোগ্য ছিল। তাদের ছাড় দেওয়া যায় না। চতুর্থ আম্পায়ার সাকিব ও ফিল্ডারদের না সামলালে এবং অন ফিল্ড আম্পায়ার নুরুল ও থিসারার মধ্যে না এলে ঘটনা আরও বাজে ঘটতে পারতো।

তথ্যসূত্র : আইসিসি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *