রোহিঙ্গাদের নিয়ে বড় সমস্যায় বাংলাদেশ

Breaking News: আন্তর্জাতিক এশিয়া জাতীয় প্রধান সংবাদ বাংলাদেশ

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর সেই দেশের সেনাবাহিনী অমানুষিক নির্যাতন করে হত্যা-ধর্ষণ করে। আর জীবন বাচাতে তারা পালিয়ে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে। প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এই রোহিঙ্গাদের নিয়ে বাংলাদেশ এখন চাপে রয়েছে। আরও নতুন করে চাপে পড়ছে বাংলাদেশ সৌদি আরব থেকে রোহিঙ্গারাও বাংলাদেশে আসছে। এ নিয়ে এখন বাংলাদেশ বেশ সমস্যায় রয়েছে বলে জানা গেছে। তাছাড়াও রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করছে। তারা সন্ত্রাসী ও অন্যায় কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়ছে। তাছাড়া বাংলাদেশের মতো দেশ তাদের দীর্ঘ দিন আশ্রয় দিয়ে ভরণ-পোষন করতে পারে না বলে অনেকে্ই মনে করছেন। তারা এক সময় দেশের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে বলে অনেকেই মনে করছেন।

মিয়ানমার থেকে সৌদি আরবে পালিয়ে গেছে যেসব রোহিঙ্গা সেই সব রোহিঙ্গা এখন বাংলাদেশে আসতে চায় এবং সৌদি সরকার এই সব রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পাঠাতে চায় বলে জানা গেছে। কিন্তু কত সংখ্যক রোহিঙ্গা আছে তার সঠিক হিসাব সরকারের কাছে নেই। ধারণা করা হয়, পাকিস্তান আমলে জাহাজভর্তি করে প্রায় দুই লাখ রোহিঙ্গা ওই দেশে যায়। বাংলাদেশ স্বাধীনতার পরে বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করেও আরও কিছুসংখ্যক রোহিঙ্গা সৌদি আরব গেছে।

এ সব রোহিঙ্গাদের বিষয়ে সরকার একজন উচ্চপদস্থ কর্মকতা জানান, সম্প্রতি আমরা প্রায় ২০০ জন রোহিঙ্গাকে— যারা বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করে সেখানে গিয়েছিল— ফেরত এনেছি। এছাড়া আরও প্রায় ৩০০ জনের একটি তালিকা নিয়ে আমরা কাজ করছি। এর বাইরে সৌদির বিভিন্ন জেলে প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গা আছে, যাদের ফেরত নেওয়ার জন্যও সৌদি কর্তৃপক্ষ আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। কিন্তু আমরা জানিয়ে দিয়েছে তারা আমাদের দেশের নাগরিক নয়। তাই তাদের ব্যাপারে আমাদের কিছু করার নেই।

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করে কোনও ব্যক্তি বিদেশ ভ্রমণ করলে এবং ওই ব্যক্তির বিবরণ যদি আমাদের ডাটাবেজে থাকে, তবে তাকে অস্বীকার করার কোনও উপায় থাকে না এবং এ কারণেই তাদের আমাদের ফেরত আনতে হবে।

সরকারের আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, এই এক হাজার রোহিঙ্গা ছাড়াও সৌদি আরবে আরও কয়েক লাখ রোহিঙ্গা বাস করছে যাদের কোনও স্ট্যাটাস নেই। তারা দীর্ঘদিন সৌদি আরবে কাজ করার অনুমতি নিয়ে বাস করছে। কিন্তু সেখানকার সরকার নতুন দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে তাদের বিষয়ে ভাবছে এবং তাদের একটি নিয়মের অধীনে আনতে চায়।
এই কর্মকর্তা জানান, সৌদি আরব এ বিষয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা করলে রোহিঙ্গারা তাদের নাগরিক নয়, এটি জানিয়ে দেয়। সৌদি কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশের সঙ্গেও তাদের স্ট্যাটাস নিয়ে আলোচনা করেছে।

এর আগে ভারত থেকেও রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে কিছু এসেছে আরও বেশ কিছু রোহিঙ্গা আসতে চায় বরে জানা গেছে। রোহিঙ্গাদের অনেক দেশ নিয়ে যেতে চাইলেও তারা যেতে চাচ্ছে না বলে জানা গেছে।
রোহিঙ্গাদের তাদের নিজ বাসভূমি মিয়ানমারে ফিরেয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে সরকার। কিন্তু মিয়ানমারের পক্ষ থেকে তেমন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানা গেছে। তবে, চীনরে পক্ষ থেকে কয়েক দিন আগে রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য অর্থ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তাতেও তারা রাজি নয় বলে জানা গেছে। তাই বলা যায়, বর্তমানে সরকার রোহিঙ্গাদের নিয়ে বেশ বড় ধরনের সমস্যায় রয়েছে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সরকারকে কূটনৈতিকভাবে আরও উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। আন্তর্জাতিকভাবে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *