মিয়ানমারের নতুন প্রেসিডেন্ট হলেন উইন মিন্ত

Breaking News: আন্তর্জাতিক এশিয়া

মিয়ানমারের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের স্পিকার ইউ উইন মিন্ত নির্বাচিত হয়েছেন। দেশটির ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সুচির ঘনিষ্ঠ সহযোগী মিন্তকে বুধবার দশম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত করেছে পার্লামেন্ট। এই প্রেসিডেন্ট নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার পর তাকে নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ঘোষণা করা হলো।

এক সপ্তাহ আগে দেশটির প্রেসিডেন্ট ইউ হতেইন কিয়াও বিশ্রামের প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করে পদত্যাগ করেন।

মিয়ানমারের পার্লামেন্টের উচ্চ ও নিম্নকক্ষের মোট ৬৩৬ ভোটের মধ্যে ৪০৩ ভোট পেয়েছেন উইন মিন্ত। দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের সাবেক এ স্পিকার ছাড়াও ইউ মিন্ত সোয়ে ও ইউ হেনরি ভ্যান থিও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এদের মধ্যে ইউ মিন্ত সোয়ে ২১১ ভোট এবং ইউ হেনরি থিও ১৮ ভোট পেয়েছেন।

রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা ও ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডির) প্রধান অং সান সুচির ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে পরিচিত নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ত। ২০১২ সাল থেকে তিনি পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের স্পিকারের দায়িত্ব পালন করেন।

তবে ডি ফ্যাক্টো প্রেসিডেন্ট হিসেবে সুচি দায়িত্ব পালন করায় মিয়ানমারের নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের পদ বা ভূমিকা মূলত আনুষ্ঠানিক। শারীরিক সমস্যা বাড়তে থাকায় গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট হতেইন কিয়াও পদ থেকে সরে দাঁড়ান।

পার্লামেন্টে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাত দিনের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। বুধবারের ভোটাভুটিতে অংশ নেওয়া তিন প্রতিযোগীই দেশটির সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট। পদ শূন্য হওয়ায় গত সপ্তাহে ভাইস প্রেসিডেন্ট উইন মিন্তকে (৬৬) অস্থায়ী প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

সুচি নেতৃত্বাধীন মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল এনএলডির দীর্ঘদিনের সদস্য উইন মিন্ত। সুচির অনুগত হিসেবে মনে করা হয় তাকে।

সূত্র : দ্য ইরাবতি, বিবিসি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *