পর্দা নামলো বাণিজ্য মেলার

Breaking News: অর্থনীতি প্রধান সংবাদ বাণিজ্য বিবিধ

আজ পদ্মা নামলো মাসব্যাপী চলা ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে ১ জানুয়ারির পরিবর্তে গত ৯ জানুয়ারি শুরু হয় বাণিজ্য মেলা। আজ বেলা ১১টায় মেলা প্রাঙ্গণে আয়োজিত সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেষ হয় এ মেলা।

এবারের মেলা নিয়ে নানা ধরনের গুজব শোনা গেছে। অনেকেই অভিযোগ করেছেন, মেলার পণ্য ভালো না। আবার অনেকেই দাবি করেছেন, মেলায় পণ্যের দাম বেশি রাখা হয়েছে। এসব অভিযোগ নিয়ে এবারের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার সমাপ্তি ঘটলো।

কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ২৪তম এ মেলা স্বার্থক হয়েছে বলে জানিয়েছেন মেলার সদস্য সচিব ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) উপ-পরিচালক (ফাইন্যান্স) মোহাম্মদ আবদুর রউফ।

তিনি বলেন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন। যারা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন, তাদের মধ্যে ক্রেস্ট বিতরণের মধ্য দিয়ে মেলা শেষ হবে।

মোহাম্মদ আবদুর রউফ বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের কারণে ১ জানুয়ারির পরিবর্তে ৯ জানুয়ারি শুরু করেছিলাম। শেষ হচ্ছে ৯ ফেব্রুয়ারি। ব্যবসায়ীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় একদিন মেলার সময় বৃদ্ধি করে। কারণ, প্রথম দিন রাষ্ট্রপতি মেলা উদ্বোধন করায় সেদিন তারা ক্রেতা পাননি। পাশাপাশি আবহাওয়া উষ্ণ থাকার কারণে ব্লেজার, শাল বা গরম কাপড়ের ব্যবসা একটু কম হয়েছে। এমন একটা অনুযোগ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে।

২০২০ সালে শেরেবাংলা নগরে ২৫তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা হবে বলেও জানান মেলার এ সদস্য সচিব।

এবারও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) যৌথভাবে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার আয়োজন করে। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশে অনুষ্ঠিত হয় এ মেলা।

মেলায় এক মাসে ৫১ প্রতিষ্ঠানকে ৪ লাখ ৪৭ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত বাণিজ্য মেলায় অবস্থিত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের স্টল থেকে এ তথ্য জানা যায়।

উল্লেখ্য, এবার মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে প্যাভিলিয়ন ১১০টি, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩টি ও রেস্তোরাঁসহ অন্যান্য স্টল রয়েছে ৪১২টি। বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের ৫২ প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নেয়। প্রতিবছর এই বাণিজ্য মেলাকে ঘিরে বসে এসব দেশি-বিদেশি স্টল। পণ্যের ব্র্যান্ডি করা হয় এই মেলার মাধ্যমে মুলত।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *