বাংলাদেশে চালু হচ্ছে মানবাধিকার হটলাইন

জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি

 

বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের কোন ঘটনা আপনার নজরে পড়লে এবার আপনি সরাসরি তা টেলিফোন হটলাইনের মাধ্যমে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে জানাতে পারবেন। আপনার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চালিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কমিশন সরকারকে সুপারিশ করবে।

কমিশন আশা করছে, আগামী মার্চ মাস থেকে ১৬১০৮ নাম্বারটি চালু হবে এবং এই টেলিফোনের কল করার জন্য অভিযোগকারীকে কোন অর্থ দিতে হবে না।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেন, এর আগে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগগুলোর সিংহভাগ আসতো পরোক্ষভাবে, যেমন সংবাদমাধ্যমে বা মানবাধিকার কর্মীদের মাধ্যমে।

অভিযোগকারী মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ জানানোর জন্য ১৬১০৮ নাম্বারটিতে ফোন করার পর কমিশনের একজন কর্মকর্তা তার কাছ থেকে বিস্তারিত জানাবেন। অভিযোগ যাচাই বাছাইয়ের পর সেটি সম্পর্কে কমিশনের তরফ থেকে তদন্ত চালানো হবে।

তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে মানবাধিকার কমিশন থেকে পুলিশ বা অন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কিংবা সরকারের অন্য বিভাগকে আইনগত পদক্ষেপ নিতে সুপারিশ করবে। অভিযোগকারী অনলাইনের মাধ্যমে এই অভিযোগের তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে পারবেন।

এই সেবা চালু হওয়ার পর ভবিষ্যতে জেলা পর্যায়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভিকটিম সরাসরিভাবে মানবাধিকার কমিশনের কাছে অভিযোগ করতে পারবে।

কিন্তু মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী শক্তিধর হলে অভিযোগকারীর নিরাপত্তা কে দেবে? এই প্রশ্নের জবাবে কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য পুলিশ, র‍্যাবসহ নানা ধরনের প্রতিষ্ঠান রয়েছে। নিরাপত্তা প্রদানের প্রাথমিক দায়িত্ব তাদের বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বাংলাদেশে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে অপহরণ, গুম ও গুপ্ত হত্যার ঘটনায় দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতি ‘চরম উদ্বেগজনক’ পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে অভিযোগ করেছে মানবাধিকার কর্মীরা।

সূত্র: বিবিসি।

 

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *