বাংলাদেশ-ভারতের বিমান বাহিনী একযোগে কাজ করতে পারে

Breaking News: জাতীয় প্রধান সংবাদ বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ ও ভারতের বিমান বাহিনী একযোগে কাজ করতে পারে। ভারতের বিমান বাহিনীর প্রধান মার্শাল বিরেন্দর সিং ধানোয়া সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে জাতীয় সংসদ ভবনে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি একথা বলেন। বাংলােদেশ-ভারত প্রতিবেশি বন্ধুভাবাপূর্ণ
দুটি দেশ। তারা সন্ত্রাস মোকাবেলা এক সঙ্গে কাজ করছে এর পাশাপামি বিভিন্ন দুর্যেোগ মোকাবেলায়ও কাজ করতে পারে বলে দুটি দেশ মনে করে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা আশা করি, দুই বিমান বাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। দুই বাহিনী যেকোনও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার ক্ষেত্রে একযোগে কাজ করতে পারে। সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী মেখ হাসনিা বলেন, জনগণ উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে। তার সরকারের লক্ষ্য হলো— তৃণমূল পর্যায় থেকে উন্নয়ন করা। তিনি বিগত ১০ বছরের উন্নতির কথাও তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রতি ভারত সরকার ও তার বিমান বাহিনীর সহায়তার কথা স্মরণ করেন।

ভারতের বিমান বাহিনীর প্রধানও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় ভারতীয় বিমান বাহিনী ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একযোগে কাজ করার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন।

ভারতের বিমান বাহিনীর প্রধান বলেন, যেহেতু এ অঞ্চলটি দুর্যোগপ্রবণ, তাই যেকোনও দুর্যোগ মোকাবিলায় দুই বিমান বাহিনী একযোগে কাজ করতে পারে।’ বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সহায়তাদানকারী ভারতীয় সেনাদের প্রতিবছর বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘আমরা এতে খুবই আনন্দিত।’

বিরেন্দর সিং ধানোয়া বাংলাদেশের স্বাধীনতার তিন মাসের মধ্যেই ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর দেশের ফিরে যাওয়ার কথা স্মরণ করে বলেন, ‘এটি যুদ্ধ শেষে স্বল্পতম সময়ে কোনও বাহিনীর দেশে ফিরে যাওয়ার একমাত্র দৃষ্টান্ত।’

ভারতের বিমান বাহিনীর প্রধান বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর অবকাঠামোর ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘এটি বিশ্বমানের।’ তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়ন, বিশেষ করে তৈরি পোশাক খাতের (আরএমজি) উন্নয়নেরও ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘ভারতের বাইরে আমি কোনও পোশাক-আশাক কিনতে গেলে সব সময় ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগ দেখতে পাই।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদিন ও ভারপ্রাপ্ত ভারতীয় হাইকমিশনার ড. আদার্শ সোয়াইকা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *