পাকিস্তান-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক পুনর্নির্মাণ করতে হবে: ইমরান খান

Breaking News: আন্তর্জাতিক এশিয়া প্রধান সংবাদ

ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক পুনর্নির্মান করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী হয়ে বেশ কিছু পদক্ষেপ ইতোমধ্যে নিয়েছেন তিনি। কোনো আলোচিত ও সমালোচিত হয়েছে। এবার নতুন করে আলোচনায় এলেন। তিনি দাবি করলেন আমেরিকার সঙ্গে সুসম্পর্ক পুনর্নিমাণ করতে হবে। সুসম্পর্ক পুনর্নিমাণে জোর দিলেন তিনি।

পাকিস্তানে এক সংক্ষিপ্ত সফরে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর কিছুক্ষণ আগে তিনি পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশির সঙ্গে পৃথক বৈঠক করেন। পাকিস্তানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দুটি বৈঠকেই পাকিস্তানের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে দুই দেশের সম্পর্ক পুনর্নির্মাণের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ চেয়ারম্যান জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড উপস্থিত ছিলেন। পাকিস্তানের দিক থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি ও সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া উপস্থিত ছিলেন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে ৪০ মিনিট স্থায়ী বৈঠকে দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া বৈঠক সম্পর্কে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ড. মুহাম্মদ ফয়সল টুইটারে উল্লেখ করেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি পারস্পরিক আস্থা ও সম্মানের ভিত্তিতে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের পুনর্নির্মাণের প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছেন।

মুহাম্মদ ফয়সল বলেছেন, এ সম্পর্কে পাকিস্তানের জাতীয় স্বার্থের সুরক্ষা সর্বোচ্চ প্রাধান্য পাবে। পাকিস্তানের স্বার্থ সুরক্ষা ছাড়া কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে না।

সাবেক সিআইএ প্রধান থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়ার পর পম্পেওর এটাই প্রথম পাকিস্তান সফর। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান হওয়ার পর থেকে আমেরিকার সঙ্গে সম্পর্ক তেমন ভালো যাচ্ছিল না বলে জানা যায়। আবার ইমরান খানও বলেছিলেন, আমরা কোনো রাষ্ট্রের অন্যায় আবদার পালন করবো না। আর আমেরিকাও আকারে-ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছিল পাকিস্তানকে তাদের আর প্রয়োজন নেই। এর মধ্যে দুই দেশের বৈঠক কোন দিকে সম্পর্ক নিয়ে যায় এটা দেখার অপেক্ষায় বিশ্ববাসী।

তথ্যসূত্র : এএফপি, ডন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *