টানা পাঁচ ঘণ্টা সেক্স অতঃপর…

বিনোদন

সেক্স কে না করতে চায়। আর দীর্ঘ সময় সেক্স করতে অনেকেই পছন্দ করেন। বিশেষ করে নারীরা দীর্ঘ সময় যৌন উত্তেজনায় থাকতে চায় বলে গবেষণায় দেখা গেছে। কিন্তু অতিরিক্ত সময় সেক্স করার পরিণতি কি হতে পারে তা জানা গেলো।

প্রেমিকের সঙ্গে নিয়মিত অন্তরঙ্গ মূহূর্তে যেতেন কলম্বিয়ার এক নারী। এবার সিদ্ধান্ত নিলেন, দীর্ঘ সময় ধরে মিলন সুখ উপভোগ করবেন। আর করলেনও তাই। উদ্দাম যৌনতায় মেতে উঠলেন ওই নারী। টানা পাঁচ ঘণ্টা ধরে করলেন যৌনমিলন। এর পরিণতি তার মৃত্যুই ডেকে আনলো অবেশেষে।

৩২ বছরের ওই তরুণীর বহুদিন ধরেই এক যুবকের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। তারা নিয়মিত সেক্স করতেন।

কিন্তু ঘটনার দিন কলম্বিয়ার সাউর্দান কালিতে একটি হোটেলে উঠেছিলেন তারা। অতিরিক্ত নেশাও করেছিলেন। খাওয়া-দাওয়ার পর সোজা বিছানায় চলে যান তরুণ-তরুণী। একে অপরের সঙ্গে যৌনসঙ্গমেও লিপ্ত হন। প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ধরে উদ্দাম যৌনতায় লিপ্ত হন তারা। সেক্স করতে করতে বিছানাতেই অসুস্থ হন ওই তরুণী। তার প্রেমিককে অসুস্থতার কথা জানালে হোটেলের জরুরি নাম্বারে ফোন করেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছে হোটেল কর্মীরা দেখেন এক্কেবারে নগ্ন অবস্থায় বিছানায় শুয়ে রয়েছেন ওই তরুণী।

হোটেল কর্মীরা হোটেল থেকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। এ সময় চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তার মারা যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে পৌঁছায়। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মিলেছে। তাতে ওই নারীর শরীরে অতিরিক্ত ড্রাগের নমুনা পাওয়া গেছে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারনা, ওই তরুণী যৌনক্ষমতা বাড়ানোর জন্য অতিরিক্ত ড্রাগ নিয়েছিলেন। তার জেরেই টানা পাঁচ ঘণ্টা ধরে প্রেমিকের সঙ্গে হোটেলের ঘরে উদ্দাম যৌনতায় মাতেন।

নিহত ওই তরুণী স্বেচ্ছায় পাঁচ ঘণ্টা ধরে যৌনমিলনে লিপ্ত হয়েছিলেন কি না, পুলিশ তা জানতে এরই মধ্যে ওই যুবকের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছে। পুলিশ এটাও ক্ষতিয়ে দেখছেন, অতিরিক্ত ড্রাগ নিয়েছিলেন কি না। তবে, সবাই অবাক হয়েছে টানা পাঁচ ঘণ্টা কি সেক্স করা সম্ভব। আর এই অতিরিক্ত সেক্স করার কারণেই অকালেই বিদায় নিতে হলো তাকে। এটা নিয়ে কলম্বোজুড়ে চলছে এখন আলোচনা।

সূত্র: মিরর

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *