ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ খুনের ঘটনায় কাজের দুই মেয়েকে খুঁজছে পুলিশ

Breaking News: আইন ও বিচার ক্যাম্পাস প্রধান সংবাদ বাংলাদেশ শিক্ষা

ঢাকার এলিফ্যান্ড রোডের নিজ বাসায় ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন খুনের ঘটনায় নিউ মার্কেট থানায় মামলা হয়েছে। রোববার মধ্যরাতে নিহতের স্বামী ইসমত কাদির গামা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুর রহমান এতথ্য নিশ্চিত করা করেছে। তিনি বলেন,মামলায় বাসার দুই কাজের মেয়েকে আসামি করা হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডটি নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে বর্তমানে।

রোববার রাতে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের এলাকায় নিজ বাসায় খুন হন ইডেনের সাবেক অধ্যক্ষ মাহফুজা চৌধুরী পারভীন। তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় ওই বাসার দুই গৃহকর্মীকে সন্দেহ করছে তারা। ঘটনার পর থেকে গৃহকর্মী দুইজন পলাতক রয়েছেন। তাদের আটকের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের আটক কতরে পারলে আসল ঘটনা হয়তো বেরিয়ে আসবে বলে মনে করছেন পুলিশের সংশ্লিষ্ট শাখার কর্মকর্তারা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, এলিফ্যান্ট রোডের সুকন্যা টাওয়ারের বাসায় থাকতেন মাহফুজা চৌধুরী। সেখানেই খুন হন তিনি। তার বাসার দুই গৃহকর্মী পালিয়েছেন। পুলিশ খুনি হিসেবে প্রাথমিকভাবে তাদেরই সন্দেহ করছে। তাদের ধরার জন্য গতরাতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হয়েছে।

মাহফুজা চৌধুরী ২০০৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ইডেন কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন। তার স্বামী গামা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান। সত্তরের দশকের প্রথম দিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন গামা। ঢাকা কলেজের সামনের বহুতল ভবন ‘সুকন্যা টাওয়ারের’ ১৫ ও ১৬ তলায় দুটি ফ্ল্যাটে (ডুপ্লেক্স) দীর্ঘদিন থেকে থাকেন তারা। ওপরের অংশটিতে তারা থাকেন।

আর নিচতলায় রান্নাঘর, গৃহকর্মীদের আবাস।এই দম্পতির দুই ছেলে। তাদের একজন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা এবং অপরজন ব্যাংকার।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *